আজ ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | বিকাল ৩:৫৬

  • বাংলা English
সদ্য :

☉ নব নির্বাচিত এমপিকে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা☉ প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত জাহাঙ্গীরের দাফন সম্পন্ন \ ঘাতক সিরাজুল গ্রেপ্তার☉ মঠবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে রোধে তারুণ্যের কন্ঠ অনুষ্ঠিত☉ অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন বানচালকারীদের কোন ছাড় নয়☉ বখাটে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বড়মাছুয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন☉ মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সড়কে কার্পেটিং কাজে আবারও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার : পিচ-পাথর নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ☉ বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আবদুর রশিদ মানিক মিঞা’র দাফন সম্পন্ন☉ ছাত্রলীগ নেতা সোহেলের নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা প্রতাহারের দাবিতে মানববন্ধন☉ মঠবাড়িয়ায় থানার ওসি প্রত্যাহার☉ ১৮ মামলার আসামী ফল সোহেলসহ গ্রেপ্তারকৃত-১২জন জেল হাজতে

স্টাফ রিপোর্টার: রাজনীতিতে নতুন মুখ ও পিরোজপুর-৩ (মঠবাড়িয়া) আসনের নব নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য শামীম শাহনেওয়াজ কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছে উপজেলার ৬ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান। বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারী) সকালে জেলা পরিষদ ডাক বাংলো’র হলরুমে এ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। এসময় ১নং তুষখালী ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান হাওলাদার, ৪নং দাউদখালী ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক খান রাহাত, ৫নং সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এবিএম ফারুক হাসান, ৭নং বেতমোর রাজপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা মোঃ দেলোয়ার হোসেন আকন, ৯ নং সাপলেজা ইউপি চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা মো.মিরাজ মিয়া এবং ৮নং আমড়াগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শারমিন জাহান এর পক্ষে তার স্বামী বিশিষ্ট সমাজ সেবক মো. মোশারেফ হোসেন শরীফ।
দাউদখালী ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগ নেতা ফজলুল হক খান রাহাত বলেন- নব নির্বাচিত এমপির নেতৃত্বে উন্নত ও সমৃদ্ধ মঠবাড়িয়া গড়তে চাই। তিনি আরও বলেন- উপজেলার ১১ইউনিয়নের মধ্যে ইতিমধ্যে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানগণ তাকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচনি মাঠে কাজ করে বিজয় লাভ করেছি। আশা করছি ১০ নং হলতা গুলিশাখালী ইউপি চেয়ারম্যানও আমাদের সাথে রয়েছে। খুব শীঘ্রই তিনি নতুন এমপিকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাগত জানাবেন।
অভিনন্দিত এমপি শামীম শাহনেওয়াজ তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন- আমি আপনাদের (চেয়ারম্যান) ভালবাসায় সিক্ত। আপনাদের নিয়ে সন্ত্রাস, মাদক ও ইভটিজিংমুক্ত মঠবাড়িয়া গড়তে চাই। তিনি আরও বলেন-আপনারা পাশে থাকলে উন্নত ও সমৃদ্ধ মঠবাড়িয়া গড়তে সক্ষম হব এবং তৃণমূল পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের নেয়া বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করতে পারব।

স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম শাহনেওয়াজ(কলার ছড়ি প্রতীক) এর সমার্থক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা জাহাঙ্গীর পঞ্চায়েত(৬০) এর লাশ শুক্রবার (৫ জানুয়ারী) দুপুরে পারিবারিক কবরস্থান মিরুখালীর বাদুরা গ্রামে দাফন করা হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে ময়না তদন্ত শেষে এর আগে আজ শুক্রবার সকাল দশটায় ৩নং মিরুখালী ইউনিয়নের বাদুরা আব্দুস সোবাহান শরীফ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে তার নামাজে যানাজা অনুষ্ঠিত হয়।এলাকার অত্যন্ত নিরিহ ও সদালাপী নিহত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জাহাঙ্গীরের যানাজায় বিভিন্ন এলাকার তিন সহস্্রাধিক শোকার্ত মানুষ অংশ গ্রহন করেন। এতে স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম শাহনেওয়াজ (কলার ছড়ি) উপস্থিত থাকলেও তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বক্তব্য রাখেন তারই ছোট ভাই ও (পিরোজপুর-৩ আসনে আ’লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রত্যহারকৃত) জেলা আ’লীগ সদস্য এবং সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুর রহমান, আপন মেজ ভাই ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ,মিরুখালী ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সোবহান শরীফ, সমাজ সেবক তরুন আ’লীগ নেতা শাহীন শরীফ প্রমূখ।
এ আসনের অত্যন্ত জনপ্রিয় নেতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুর রহমান বক্তব্যের সময় চোখে পানি দেখে সবাই কান্নায় ভেংগে পড়ে। এসময় সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। আশরাফুর রহমান নিহত জাহাঙ্গীর পঞ্চায়েতকে তার একনিষ্ট সমর্থক দাবী করেন। নির্বাচনি প্রচারনায় যাওয়ার সময় প্রতিপক্ষ স্বতন্ত্র প্রার্থী ডাঃ রুস্তুম আরী ফরাজী (ঈগল) সমর্থক সিরাজ ও তার দলবল তাকে পরিকল্পিত ভাবে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেন। এদিকে, পিরোজপুরের ডিবি পুলিশ আজ শুক্রবার সকালে এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান আসামী মো. সিরাজুল ফরাজী (৪৫) কে গ্রেফতার করেছে। শুক্রবার সকালে সে পালিয়ে ঢাকা যাওয়ার সময় গ্রেফতারের কথা বলা হলেও কোন স্থানের নাম উল্লেখ করেননি। পরে পিরোজপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এক প্রেসব্রিফিংয়ে জাহাঙ্গীরের স্ত্রী বুলু বেগমের দায়ের করা বুধবার গভীর রাতের মামলার সূত্র্র ধরে বলেন, তার স্বামী জাহাঙ্গীর পঞ্চাইতের সাথে বশির ফরাজীর পুত্র সিরাজুল ফরাজীর পূর্ব বিরোধের জের ধরে তার দলবল জাহাঙ্গীরের উপর অতর্কিত হামলা করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে তার মৃত্যু ঘটে।
এ ব্যাপারে ঈগল প্রতীকের নির্বাচনী কমিটির সদস্য সচিব উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর বলেন, বিষয়টি জমি সংক্রান্ত পূর্বে বিরোরে জের। নির্বাচনের সাথে এর কোন সম্পর্ক নেই।
পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম (পিপিএিম) সিরাজুল ফরাজীকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে জাহাঙ্গীর প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়েছেন। যা তার স্ত্রী এজাহারে উল্লেখ করেছেন। এর বাইরে হত্যার অন্য কোন কারণ থাকলে তা তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে বাল্য বিয়ে রোধে তারুন্যের কণ্ঠ অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে বাংলাদেশ বেতারের আয়োজনে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সচেতনতা মূলক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল কাইয়ূম। এছাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজু, সরকারী হাতেম আলী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষক তোফাজ্জেল হোসেন, উদ্ভাসিত বেতার শ্রোতা সংঘের সভাপতি কৃষ্ণ কর্মকার, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী অভিভাবক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে নানামুখী কার্যক্রমের কথা জানান।
প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল কাইয়ূম বলেন, বাল্যবিবাহ আমাদের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। আমাদের সবার কাজ করতে হবে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে। আসুন সম্মিলিত ভাবে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে কাজ করি।
উপস্থাপক সজীব দত্ত জানান, অনুষ্ঠানটি গত ৮ বছর ধরে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের আই.ই.এম ইউনিটের আর্থিক সহযোগিতায় জনসংখ্যা স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেল বাংলাদেশ বেতার সারাদেশে আয়োজন করে চলেছে। আগামী ০৩ ফেব্রæয়ারী শনিবার রাত ০৮ টা ১০ মিনিটে পরিচালক মোঃ বশির উদ্দিন এর নির্দেশনায় উপ-পরিচালক মোঃ আমিরুল ইসলামের তত্বাবধানে, সহকারী পরিচালক তোফাজ্জেল হোসেনের প্রযোজনায় বাংলাদেশ বেতার ঢাকা ক ও এফ এম ১০৬ মেগাহার্টজ এ তারুণ্যের কন্ঠ প্রচার হবে।

স্টাফ রিপোর্টার: আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ভোটারদের স্বতস্ফুর্ত অংশ গ্রহনে অনুষ্ঠিত অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন বানচালকারীদের কোন ছাড় নয়। সরকার আমাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সুচারুরুপে পালন করব। বিশৃংখলা সৃষ্টিকারীরা যতই শক্তিশালী হোক না কেন? তাতে কিছু আসে যায় না। রাষ্ট্রের বড় আমানত রক্ষায় যা যা করণীয় তা সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করার আহবান জানান। আগামী ৭ জানুয়ারী পর্যন্ত এজন্য আপনাদের নিরাপত্তার জন্য সকল ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ৮৪ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহনকারী প্রিজাইডিং, সহকারী প্রজাইডিং ও পুলিং অফিসারদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এ কথা বলেন। তিনদিন ব্যাপি এ কর্মশালার প্রথম দিন বুধবার (২০ ডিসেম্বর) সকালে শহরের সরকারী হাতেম আলী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে এ কর্মশালার শুভ উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোঃ পাভেজ হাসান বিপিএএ। এ সময় পিরোজপুর জেলা প্রশাসক ও রিটানিং অফিসার মোহাম্মদ জাহেদুর রহমানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় সরকারের দেয়া দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য রাখেন বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি ফারুক উল হক, পিরোজপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম পিপিএম, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ আলাউদ্দিন ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান প্রমূখ।
সহকারী রিটানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল কাইয়ূম বলেন- পিরোজপুর-৩ (মঠবাড়িয়া) আসনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২ লাখ ২৩ হাজার ৪শ’ ৪২ ভোটারের জন্য ৮৪টি ভোট কেন্দ্রের দায়িত্ব পালনের জন্য ১ হাজার ৭শ’ ৬৫ জন কর্মকর্তার মধ্যে প্রথম দিনে ৯৩ জন প্রিজাইডিং অফিসার ও ১শ’৮০জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ৪শ’ ২০জন পোলিং অফিসার কর্মশালায় অংশ গ্রহণ করেন। বাকী কর্মকর্তাগণ আগামী ২১ ও ২২ডিসেম্বর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নিবেন বলে তিনি আরও জানান।

স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক স্কুল ছাত্রীর দুই গালে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় বখাটে সাব্বিরকে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে বড়মাছুয়া ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক অভিভাবকরা। বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) উপজেলার রড়মাছুয়া বাজার সম্মূখ সড়কে সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে এক ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বিদ্যালয়ের পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক, ম্যানেজিং কমিটির সদস্যসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করে। পরে ওই বাজারের তিন রাস্তার মোড়ে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক বাবু সুশীল চন্দ্র মজুমদারের সভাপতিত্বে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজু, বিদ্যালয়ের সিনিয়র ইন্সট্রেকটর মোঃ মোশারেফ হোসেন, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য ও ইউপি সদস্য মোঃ জাফর মৃধা, হারুন অর রশিদ, জিয়াউর রহমান, নির্যাতিতা ছাত্রীর মা তাসলিমা বেগম ও শিক্ষার্থী মরিয়ম আক্তার প্রমূখ। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা উপজেলার দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামের মহারাজ হাওলাদারের বখাটে ছেলে সাব্বির হাওলাদারকে দ্রæত গ্রেপ্তার করে ফাঁসির দাবী জানান। গত ৫দিন অতিবাহিত হলেও থানা পুলিশ ওই বখাটেকে গ্রেপ্তার না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে সাব্বিরকে দ্রæত গ্রেপ্তার করে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির চেয়ে এলাকাবাসী পুলিশের রেঞ্জ ডিআইজি, পুলিশ সুপারসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেন।
মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বড়মাছুয়ার ইউনিয়নের ঠুটাখালী গ্রামের সৌদি প্রবাসী ৯ম শ্রেণীর স্কুল পড়–য়া মেয়ে ও স্থানীয় বড়মাছুয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে বার্ষিক পরীক্ষা শেষে ২৬ নভেম্বর রোববার দুপুরে বাড়ি ফেরার পথে বখাটে সাব্বির কথার ছলে ওই ছাত্রীর পথরোধ করে। ওই ছাত্রী কথা না শুনলে ধ্বস্তাদস্তির এক পর্যায় বখাটে সাব্বির হাতে থাকা বেøড দিয়ে ওই ছাত্রীর গালে পোচ দিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে পালিয়ে যায়।
ছাত্রীর ডাক চিৎকারে সহপাঠি ও স্থানীয়রা গুরুতর আহত ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম বলেন- অভিযুক্ত ওই সাব্বিরের মোবাইল বন্ধ রয়েছে। আমরা সকল প্রযুক্তি ব্যবহার করে সাব্বিরকে গ্রেপ্তারে পুলিশের চেষ্টা অব্যহত আছে।

স্টাফ রিপোর্টার: মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সওজ এর বেহাল সড়কের নিম্নমানের কার্পেটিং মেরামতের চার দিনের মাথায় গাড়ীর চাকার সাথে উঠে যাওয়ায় বিক্ষুব্ধ জনতা সড়কের পিচ-পাথর হাত দিয়ে তুলে ফেলেছে। রাতের আধারে সদ্য সমাপ্ত কাজের কার্পেটিংয়ের পিচ-পাথর হাতে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ সিডিউল মাফিক কাজ করার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেন। শনিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে ব্যস্ততম ওই সড়কের মল্লিকবাড়ি বালু মহাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। বেহাল সড়কটি প্রশস্ত করণের পর সড়ক ও জনপদ বিভাগের অবহেলায় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে গত চার দিন আগে কার্পেটিংয়ের কাজ সম্পন্ন করে।
এলাকাবাসির অভিযোগ, শনিবার দুপুরে মেরামতকৃত এ সড়কে ভারী যানবাহন চলাচল শুরু করলে গাড়ির চাকার সাথে পিচ-পাথর উঠে সড়ক পুনরায় বেহাল হওয়ার আশংঙ্কা দেখা দেয়। পরে স্থানীয়রা ও পথচারিরা সড়কে হাত দিয়ে টেনে তুলে দেখেন কার্পেটিংয়ের পিচ-পাথর উঠে আসছে। জনগুরুত্বপূর্ণ ও ব্যস্ততম সড়কে নিম্নমানের কার্পেটিং কাজের জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসি।
পিরোজপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগ সূত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া পাশর্^বর্তী শরণখোলাগামী ব্যস্ততম সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে খানা খন্দের সৃষ্টি হয়ে যান চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ে। গত বছর বড়মাছুয়ার সাথে পাশর্^বর্তী বাগেরহাটের শরণখোলায় বলেশ^র নদীতে ফেরি সার্ভিস চালু হলে এ সড়কটি আরো ব্যস্ততম হয়ে পড়ে। ফলে ৯ কিলোমিটার সড়কটি প্রশস্তকরণ ও মেরামতের কাজ শুরু করা হয়। সড়কের সাড়ে চার কিলোমিটার সড়ক কার্পেটিয়ের জন্য ২০২২ সালে দরপত্র আহŸান করেন পিরোজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগ। সাড়ে সাত কোটি টাকা ব্যায়ে খুলনার মেসার্স মুজাহার এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সড়ক প্রশস্ত করণ ও মেরামতের কাজ পান।
স্থানীয়রা জানান, গত বুধবার সন্ধ্যা রাত হতে গভীর রাত পর্যন্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজন সড়কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গেট হতে মল্লিকবাড়ি বালুমহল পর্যন্ত কার্পেটিং এর কাজ সম্পন্ন করে। এরপর সড়কে যানবাহন চলতে শুরু করলে বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই গাড়ির চাকার সাথে পিচ ও পাথর উঠতে শুরু করে। স্থানীয় জনতা সড়কের দেড় কিলোমিটার অংশের বিভিন্ন স্থানের নতুন সংস্কার করা পিচ পাথর হাতে তুলে প্রতিবাদ জানান।
খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে সরেজমিনে গেলে কথা হয় উপজেলার দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের কৃষক মো. আসাদুজ্জামান হাওলাদারের (৬৭) সাথে। তিনি বলেন, সম্প্রতি অতিবৃষ্টি ও ঘূর্ণিঝড়ের পর নির্মাণাধিন সড়কটি কর্দমাক্ত হয়ে যায়। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাদা ও বালি পরিস্কার না করেই বেহাল সড়কের ওপর দায়সারা ভাবে নিম্নমানের পিচ-পাথর দিয়ে রাতের আঁধারে কার্পেটিংয়ের কাজ শেষ করে। সাড়ে চার কিলোমিটার নির্মাণ কাজের দেড় কিলোমিটার এলাকার পিচ পাথর এখন চটা বেঁধে উঠে যাচ্ছে। তারা বলেন-সরকারি টাকার এমন অপচয় মেনে নেয়া যায়না।
স্থানীয় বাসিন্দা রাজমিস্ত্রী মোতালেব হোসেন (৪৫) বলেন, ২/৩ মাস আগে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওই গুরুত্বপূর্ণ সড়কে বৃষ্টির পানি ও কাদার মধ্যে বেহাল সড়কের ওপর কার্পেটিং করলে স্থানীয়দের তোপের মুখে পড়েন।
২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ব্যবসায়ী আসাদুজ্জামান (৩৮) বলেন- পিরোজপুর-বাগেরহাটের দুই জেলার বাসিন্দারা এ সড়ক দিয়ে নিয়মিত চলাচল করে। অথচ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উদাসীনতায় বার বার ঠিকাদার নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করে করে যাচ্ছে। এ বিষয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া জরুরী। এ ব্যপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে পিরোজপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী টি.এম রাজিমুল আলীম বলেন, ওই সড়কের সাড়ে চার কিলোমিটার নয় মাত্র ১০ মিটার অংশে মেরামতে ত্রুটি হয়েছে । এ ব্যাপারে সরেজমিনে গিয়ে সড়কের কাজ দেখে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পিরোজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী তানভির আহম্মেদ বলেন- সড়ক সংস্কার কাজ নিম্নমানের হওয়ার কথা নয়। আমি সংশ্লিষ্ট উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলীকে সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছি।

স্টাফ রিপোর্টার: মঠবাড়িয়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও ৭ নং বেতমোর রাজপাড়া আর্দশ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক আলহাজ¦ আবদুর রশিদ মানিক মিঞা সোমবার (২০ নভেম্বর) রাতে ঢাকা স্যার সলিমুল্লাহ্ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন (ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। তিনি ৬ ছেলে, ১ মেয়ে, স্ত্রী, আত্মীয় স্বজন, নাতি-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টায় শহীদ মোস্তফা খেলার মাঠ ও দুপুর ১২টায় বেতমোর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নামাজে জানাযা শেষে ঘোপখালী পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, পৌর প্রশাসক আরিফ-উল হক, মহিউদ্দিন আহমেদ মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আজিম উল হক, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি এম.এ কুদ্দুস, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ সিকদার, মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজুসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ শোক প্রকাশ করেছে এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আবদুর রশিদ মানিক মিঞা’র জেষ্ঠ্য পুত্র মোঃ রেজাউল আহসান বাচ্চু বাংলাদেশ বিমানে কান্ট্রি ম্যানেজার (কাতার), দ্বিতীয় পুত্র প্রফেসর ডা: মো: জাহিদুল আহসান মেনন স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বিভাগীয় প্রধান (চক্ষুবিভাগ), ৩য় পুত্র মো: কামরুল আহসান মামুন ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের হবিগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক, ৪র্থ পুত্র মো: বদরুল আহসান শামীম মঠবাড়িয়া মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহিলা ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক, ৫ম পুত্র মোঃ মনিরুল আহ্সান রিয়াজ কাঁঠালিয়া সরকারি তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া কলেজের প্রভাষক, মোঃ নাজমুল আহ্সান মিরাজ এ্যাকশন এইড এর ইউথ প্রোগ্রাম ম্যানেজার এবং একমাত্র কন্যা মোসাম্মৎ জামিলা আক্তার লুনা মিরপুর ক্যামরিয়ান স্কুল এ- কলেজের প্রভাষক।

স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সোহেল রানা নামের এক ছাত্রলীগ নেতার নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহরের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন জেল হাজতে থাকা সোহেলের পরিবার ও এলাকাবাসী। রোববার (১২ নভেম্বর) সকালে মঠবাড়িয়া-ধানীসাফা সড়কের চিত্রা পাতাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সম্মুখে সকাল ১০ টা হতে এক ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে ও সোহেলের পরিবারসহ এলাকার তিন শতাধীক নারী পূরুষ অংশ গ্রহন করে। পরে এক প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সাফা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ রফিকুল ইসলাম, ইউনিয়ন আ’লীগ নেতা সরোয়ার হোসেন, এলাকাবাসী কবির হোসেন ফরাজী, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সোহাগ ও গ্রেপ্তারকৃত সোহেলের মা তাজিনুর বেগম, বোন চাদনী, প্রতিবেশী ফরিদা বেগম, পারভীন বেগম প্রমুখ।
বক্তারা মামলা দিয়ে সোহেলকে হয়রানী করার জন্য পুলিশ নিজেরা অস্ত্র দিয়ে একটি মিথ্যা, সাজানো ও হয়রানী মূলক মামলা দাবী করে তার নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রতাহারের দাবী জানান।
উল্লেখ্য, উপজেলার চিত্রা পাতাকাটা গ্রামের মৃত. চান মিয়া মাঝির ছেলে ছাত্রলীগ নেতা ও একাধিক মামলার আসামী সোহেল রানাকে সম্প্রতি থানায় দায়ের করা একটি মামলায় পৌরসভার সম্মুখ থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। খবর পেয়ে তার সহযোগীরা সোহেলকে পুলিশ হেফাজত থেকে ছিনিয়ে নেয়। এরপর গত ৮ নভেম্বর রাতে শহরে পিরোজপুর ডিবি ও থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ছাত্রলীগ নেতা সোহেলকে পিস্তলসহ গ্রেপ্তার করে। এসময় আরো ১০জন সহ মোট ১১ জন ছাত্রলীগ কর্মিকে গ্রেপ্তার করে। থানা পুলিশ এ ঘটনায় সরকারী কাজে বাঁধা ও অস্ত্র আইনে পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক তিনটি মামলায় অর্ধশত ছাত্রলীগ নেতা কর্মিকে আসামী করে। সোহেলকে অস্ত্র ও সরকারী কাজে বাধা আইনের দুটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেল হাজতে পাঠায়। বর্তমানে সোহেল জেল হাজতে রয়েছে।
থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন -এ মামলা তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্তাধীন মামলার বিষয়ে সোহেল পরিবার ও এলাকাবাসীর এ মানববন্ধনে কোন প্রভাব ফেলবে না। পুলিশ তদন্ত করে সঠিক রিপোর্ট আদালতে পেশ করবে।

Add
Add
Add
Add