আজ ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৫৩

  • বাংলা English
সদ্য :

☉ নব নির্বাচিত এমপিকে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা☉ প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত জাহাঙ্গীরের দাফন সম্পন্ন \ ঘাতক সিরাজুল গ্রেপ্তার☉ মঠবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে রোধে তারুণ্যের কন্ঠ অনুষ্ঠিত☉ অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন বানচালকারীদের কোন ছাড় নয়☉ বখাটে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বড়মাছুয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন☉ মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সড়কে কার্পেটিং কাজে আবারও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার : পিচ-পাথর নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ☉ বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আবদুর রশিদ মানিক মিঞা’র দাফন সম্পন্ন☉ ছাত্রলীগ নেতা সোহেলের নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা প্রতাহারের দাবিতে মানববন্ধন☉ মঠবাড়িয়ায় থানার ওসি প্রত্যাহার☉ ১৮ মামলার আসামী ফল সোহেলসহ গ্রেপ্তারকৃত-১২জন জেল হাজতে

ইয়াসের প্রভাবে জলোচ্ছাসে ৫০ হাজার মানুষ পানিবন্দী ॥ বেড়িবাঁধের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

ইয়াসের প্রভাবে জলোচ্ছাসে ৫০ হাজার মানুষ পানিবন্দী ॥ বেড়িবাঁধের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াস এর প্রভাবে জোয়ারের পানিতে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে উপজেলার একটি পৌর শহর ও ১১ টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।স্বাভাবিকের চেয়ে ৪/৫ ফুট পানি বৃদ্ধিতে নিম্নাঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকার বাজার, রাস্তা-ঘাট, বসত বাড়ি প্লাবিত হয়েছে। অতিরিক্ত পানিতে নিম্ন এলাকার ৫০ হাজার মানুষ পানি বন্দী হয়ে অর্ধাহারে অনাহারে মানবেতর জীবন যাপন করছে।
এদিকে বলেশ্বর ও বিষখালী নদীর পানি বৃদ্ধিতে জোয়ারের স্রোতে নদ তীরবর্তী বিভিন্ন ইউনিয়নের রক্ষা বেড়িবাধ উপচে অর্ধশত গ্রামে প্লাবন ঘটেছে। বিশেষ করে বলেশ্বর নদ মধ্যবর্তী মাঝের চরের সাড়ে চার কিলোমিটার বেরিবাধের অধিকাংশ জায়গা জোয়ারের তোড়ে ভেসে গেছে। এছাড়াও বলেশ্বরের মাঝেরচর, খেতাচিড়া, কচুবাড়িয়া, জলাঘাট, সাংরাইল, বড়মাছুয়া, খেজুরবাড়িয়া, ভোলমারা, তুষখালী, ছোট মাছুয়া, কাটাখালী, তুলাতলা, জানখালী, বেতমোর, উলুবাড়িয়াসহ বিষখালীর জোয়ারের স্রোতে মিরুখালী বাজার ও টিকিকাটার ভেচকি, কুমিরমারা, সুর্য্যমনি, বাইশকুড়া বাধের অনেক অংশ বিলিন হয়ে গেছে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, মঙ্গলবার বিকেল থেকে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস এর প্রভাবে বলেশ্বর নদে স্বাভাবিকের চেয়ে ৪/৫ মিটার পানি বৃদ্ধি পায়। সেই সাথে দমকা বাতাস সৃষ্টি হলে গভীর রাতে উপজেলার বড়মাছুয়া ইউনিয়নের লঞ্চঘাট, ষ্টিমারঘাট এলাকার বেরিবাধ উপচে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করে। বুধবার সকালে অতি জোয়ারে পানির চাপ বৃদ্ধি পায়। এতে কৃষিজমি ৩/৪ফুট পানিতে তলিয়ে যায়। এছাড়া মঠবাড়িয়া পৌর শহরের দক্ষিণ বন্দর, থানাপাড়া ও দক্ষিণ বন্দর এলাকার খাল উপচে হু হু করে জোয়ারের পানি ঢুকে পানি বন্দী হয়ে পড়েছে সহস্রাধিক পৌরবাসি এসব পরিবারে আজ রান্না বান্নাও বন্ধ। এছাড়া শহরের আজাহার কলোনী এলাকায় খালের পানি ঢুকে ৩শ পরিবারে দুর্ভোগের সৃষ্টি করেছে।
স্থানীয়রা জানান, বড়মাছুয়া স্টিমার ঘাটের এক কিলোমিটার এলাকার বাধ গত আম্ফানে ব্যাপক ক্ষতি হয়। পরে বাধ উঁচু না করে পানি উন্নয়ন বোর্ড ভাঙন কবলিত এলাকায় শুধুমাত্র বালির বস্তা ফেলে দায়সারা মেরামত করে। ইয়াসের প্রভাবে তাও ধসে গেলে বাধ উপচে জোয়ারের প্লাবনে গ্রামের পর গ্রাম জলমগ্ন হয়ে পড়ে। ফলে ওই এলাকার বাসিন্দারা পানি বন্দী হয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। বর্তমানে বড়মাছুয়া স্টিমারঘাট ও লঞ্চঘাট বাজার চরম ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এছাড়া বিপন্ন বাধের ওপর বৈদ্যুতিক পিলার গুলো হেলে পড়ে নদী গর্ভে বিলীনের আশংকা রয়েছে।


অপরদিকে, বলেম্বর নদ মধ্যবর্তী মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন মাঝের চর এলাকার জেলে পল্লীর দুই শতাধিক পরিবার এখনও আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। মঙ্গলবার রাতে ঝড় ও জোয়ারের তোড়ে মাঝের চরের সাড়ে চার কিলোমিটারের বেরিবাধের অনেক জায়গা ধসে গিয়ে মাঝেরচরে মহা প্লাবনের সৃষ্টি করেছে। বুধবারের জোয়ারে পুরো চরের বসতি ও বনাঞ্চল ৫/৬ ফুট পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়লে কয়েকশত পরিবার পানিবন্দী পরিবার স্থানীয় ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রে আটকা পড়েন। এসব জেলে পরিবারগুলোর রান্না বান্না বন্ধ হয়ে পড়লে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আকাশ কুমার কুন্ডু, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মিলন তালুকদার চাল ডালসহ খাদ্য উপকরণ ও রান্না করার জন্য গ্যাসের চুলা পৌঁছে দেন।
অপরদিকে, খেতাচিড়া বেড়িবাধের বাইরে বসবাসকারী সহস্রাধিক পরিবার বসত ঘর ডুবে যাওয়ায় নিকটবর্তী বেড়িবাধে আশ্রয় নেয়। দেড় সহস্রাধিক মানুষের মাঝে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন ও ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে দুপুরের খাবার বিতরণ করা হয়।

এদিকে মাছুয়া ও কালিরহাট বাজারের খালের জোয়ারের তোড়ে গ্রামের পর গ্রাম জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। সেখানে বেশ কয়েক গ্রামের লোকজন পানিবন্দী হয়ে পরেছে। এসব এলাকার মানুষের পানিবন্দী নির্ঘূম রাত শেষে বুধবারের জোয়ারে আরও দুর্ভোগ বাড়িয়ে দিয়েছে। হাজার হাজার হেক্টর কৃষিজমি, আউশ ধানের ক্ষেত ৪/৫ফুট পানির নিচে। পুকুর ও ঘেরের মাছ ভেসে গেছে।
স্থানীয় তরুন সমাজ সেবক মাইনুল ইসলাম জানান, বড়মাছুয়া লঞ্চ ও স্টীমার ঘাট সংলগ্ন বেড়িবাধ ঝুঁকিতে রয়েছে। এছাড়া মাঝের চরের সাড়ে চার কিলোমিটার বাধ জোয়োরের তোড়ে সম্পূর্ণ ভেসে গেছে। ১শ ২০ চরবাসি পরিবার এখন পানি বন্দী।
পানি উন্নয়ন বোর্ড পিরোজপুর এর উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. শাহ আলম বালি বলেন, বড়মাছুয়া বেড়িবাধে ঝুকিপূর্ণ স্থানে জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙ্গন রোধ করার চেষ্টা চলছে। এছাড়া খেতাচিড়া, কচুবাড়িয়া বাধে জোয়ারের তোরে কিছু জিও ব্যাগ ডিসপ্লেস হওয়ার খবর পেয়েছি। তবে পর্যাক্রমে ছুটে যাওয়া বাধে সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মী ভৌমিক জানান, প্রতিটা ঘূর্ণিঝড়ে এখানকার বলেশ^র তীরের বসতির মানুষজন ভীষণ ঝুঁকির মধ্যে পড়েন। বিশেষ করে, বলেশ্বর নদীর খেতাচিড়া মোহনা বাধ, বড়মাছুয়া মোহনা বাধ ও বলেশ^র নদীর মাঝের চরের জেলে বসতির মানুষ জলমগ্ন হয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। বলেশ্বর নদীর বাধ ও মাঝের চরের বেড়িবাধ অন্তত আরও ৬/৭ ফুট উচু করানো জরুরী। এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে একটি প্রস্তাবনা পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া হবে।

Comments

comments

আরও পড়ুন

নব নির্বাচিত এমপিকে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা
নব নির্বাচিত এমপিকে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা
নব নির্বাচিত এমপিকে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা
প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত জাহাঙ্গীরের দাফন সম্পন্ন \ ঘাতক সিরাজুল গ্রেপ্তার
প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত জাহাঙ্গীরের দাফন সম্পন্ন \ ঘাতক সিরাজুল গ্রেপ্তার
প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত জাহাঙ্গীরের দাফন সম্পন্ন \ ঘাতক সিরাজুল গ্রেপ্তার
মঠবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে রোধে তারুণ্যের কন্ঠ অনুষ্ঠিত
মঠবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে রোধে তারুণ্যের কন্ঠ অনুষ্ঠিত
মঠবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে রোধে তারুণ্যের কন্ঠ অনুষ্ঠিত
অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন বানচালকারীদের কোন ছাড় নয়
অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন বানচালকারীদের কোন ছাড় নয়
অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন বানচালকারীদের কোন ছাড় নয়
বখাটে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বড়মাছুয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন
বখাটে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বড়মাছুয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন
বখাটে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বড়মাছুয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন
মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সড়কে কার্পেটিং কাজে আবারও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার : পিচ-পাথর নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ
মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সড়কে কার্পেটিং কাজে আবারও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার : পিচ-পাথর নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ
মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সড়কে কার্পেটিং কাজে আবারও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার : পিচ-পাথর নিয়ে স্থানীয়দের ক্ষোভ