আজ ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | রাত ১২:৪৬

  • বাংলা English
সদ্য :

☉ মঠবাড়িয়ায় যাত্রীবাহী বাসচাপায় আদালতের অফিস সহায়ক নিহত: আহত দুই☉ রুট পারমিট ছাড়া বেপরোয়া গতির বাসে কলেজ ছাত্রের জীবন কেড়ে নিল \ সড়ক অবরোধ☉ পৌর প্রশাসকের দায়িত্বভার বুঝে নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক☉ পরকীয়ার বিরোধে চাচাত ভাইয়ের ধারালো অস্ত্রের কোপে দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন☉ মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল☉ ইজারাদারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ও টাকা লুটের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন☉ প্রেসক্লাবের নতুন কমিটিকে যারা অভিনন্দন জানিয়েছেন☉ দ্বি-খন্ডিত করার গুজব ছড়ানোর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন☉ বিধবা নারী ও মেয়েকে তাড়িয়ে দিয়ে বসতবাড়ি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন☉ ‘মঠবাড়িয়ার সংবাদ’ এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে দশ সুপারিশমালা পেশ

হে তরুণ প্রজন্ম, চলো এগিয়ে যাই

হে তরুণ প্রজন্ম, চলো এগিয়ে যাই

তরুণ প্রজন্ম হচ্ছে দেশ ও জাতির সবচেয়ে শক্তিশালী হাতিয়ার। দেশ ও সমাজ উন্নয়নে বেশিরভাগ অবদান তরুণদের। তরুণরাই দেশের বেশিরভাগ সফল কাজের অংশীদার। বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশ নামক একটি সুন্দর রাষ্ট্র জন্ম হওয়ার পিছনেও রয়েছে তরুণদের মুখ্য ভূমিকা। তারুণ্যে বিশ্বাস রেখে গেছেন ম্যান অফ পিস “নেলসন ম্যান্ডেলা”। তিনি বলেছেন ‘আজকের তরুণ আগামী দিনের নেতা’। বাংলাদেশ নামের এই ছোট্ট দেশটিও তারুণ্যে ভরা। এদেশকে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্বও আমাদের তরুণদের। আমাদের হয়তো খুব বেশি খনিজ সম্পদ নেই। কিন্তু লক্ষাধিক তরুণ রয়েছে। আমাদেরই ঠিক করতে হবে আমরা আমাদের এই ছোট্ট দেশটিকে বিশ্বমানচিত্রে কোন অবস্থানে দেখতে চাই। তরুণদের নিয়ে বিভিন্ন কাজ করে গেছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। তরুণদের নিয়ে কাজ করছেন বর্তমান বাংলাদেশ সরকারের আই,সি,টি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয়। আমার ধারণা মতে তিনিও তারুণ্যে বিশ্বাস করেন। এজন্যই তিনি তরুণদের নিয়ে দেশ ও সমাজ উন্নয়নের জন্য করছেন বিভিন্ন ধরনের ইতিবাচক কাজ। তিনি তারুণ্যে বিশ্বাস রেখে উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে তরুণদের ধাবিত করছে দেশ ও সমাজের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের দিকে। আমাদের দেশের বৃহৎ একটা অংশ তরুণ তাই তরুণদের হাতেই আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ নিহিত। আমাদের এই দেশটাকে গড়তে হবে তরুণদেরই। তবে বিশ্বের অন্যান্য উন্নত দেশের তরুণদের মতো আমাদের দেশের তরুণদের ততটা সুযোগ নেই। আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তবে সেই সীমাবদ্ধতা গুলোর কারণ যতটা না সামাজিক, রাজনৈতিক কিংবা অর্থনৈতিক তার চেয়ে বেশি মানসিক। আমাদের দেশের তরুণদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথে সবচাইতে বড় সমস্যা “মানসিক সমস্যা”।
এই মানষিক সমস্যা আমাদের তরুণদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ আটকে দেয়। আমাদের দেশের তরুণরা এক অস্থিরতার মধ্যে দিয়ে জীবন যাপন করছে। দেশের এক একটা ইস্যুতে আমরা গা ভাসিয়ে দেই। আমরা খুব ভালো ভাবে বুঝিনা বা বুঝতেও চেষ্টা করিনা আমাদের কোন বিষয়ে কথা বলা উচিত আর কোন বিষয়ে উচিত না। আমাদের অবশ্যই বুঝতে হবে নয়তো আমাদের এই অস্থিরতাই আমাদের এই দেশটাকে স্থির করে দিয়ে দেশ উন্নয়নে বাধা হয়ে দাঁড়াবে। আমাদের এই তরুণ প্রজন্মকে অবশ্যই স্থির থাকতে হবে। স্থির থাকা মানে কিন্তু থেমে থাকা নয়। আমাদের মনস্থির রেখে বুঝে শুনে কাজ করতে হবে। তবেই আমরা সফল হবো। তরুণরা শুধু স্রোতেই গা ভাসাবে না প্রয়োজন বোধে তরুণরা স্রোতের বিপরীতে পথে চলবে। সমাজের কোনো নিয়ম তাদের পছন্দ না হলে তারা নিয়মে পরিবর্তন আনবে। তবে সে পরিবর্তন হতে হবে সঠিক। আমাদের তরুণ প্রজন্মকে বুঝতে হবে আমরা কি চাই কি করলে আমাদের চাওয়াটা পূরণ হবে। কিভাবে আমরা দেশ ও সমাজের উন্নতি করতে পারি। মুদির দোকানে গিয়ে ওষুধ খুঁজলে হবেনা। জানতে হবে বুঝতে হবে কোথায় গেলে ওষুধ পাওয়া যাবে। বুঝে শুনে ওষুধের জন্য আমাদের যেতে হবে ফার্মেসিতে। আমাদের বুঝতে হবে কোথায় গেলে কি করলে আমাদের প্রয়োজনীয় জিনিসটি পাবো। আমরা জেনে শুনে সঠিক পথে হাঁটলে দ্রুত ও সাফল্যের সাথে আমাদের কাঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছতে পারবো। আমাদের নিজেদের শক্তির জায়গাগুলো আমাদের নিজেদেরই খুঁজে বের করতে হবে। প্রয়োজনে রুখে দাঁড়াতে হবে অপশক্তির বিরুদ্ধে। আমরা পরামর্শের জন্য প্রবীণদের কাছে যেতে পারি। প্রবীণরা যদি আমাদের একটি বা দুটি পথ দেখিয়ে দেয় তাহলে তৃতীয় পথটি আমরা খুঁজে বের করতে পারবো। খুঁজে বের করতে না পারলেও প্রয়োজন বোধে আমরা তৃতীয় পথটি তৈরি করে নিতে পারবো। এই আত্মবিশ্বাসটুকু আমাদের থাকতে হবে। আমরা আত্মবিশ্বাসের সাথে কাজ করলে সফল হবোই। আমরা তরুণরা হয়তো ভেবে বসে আছি দেশ ও সমাজ পরিবর্তনের জন্য আমাদের হাতে অনেক সময় আছে। হ্যাঁ আমাদের ভাবনাটা ভুল নয়। আমাদের হাতে অবশ্যই অনেক সময় রয়েছে। কিন্তু পৃথিবীতো থেমে নেই। গতকাল যেখানে ছিল আজ সেখানে নেই, আগামীকাল আজকের জায়গায়ও থাকবেনা। সময় ও স্রোত তো কারো জন্য অপেক্ষা করেনা। তাই আমাদের সময়ের কাজগুলো অবশ্যই সময়মতো করতে হবে। তবেই আমরা সফল হবো করতে পারবো দেশ ও সমাজের পরিবর্তন গড়তে পারো সমৃদ্ধশালী দেশ। কোনো কাজে প্রথমবারে ব্যর্থ হলে আমাদের থেমে থাকলে চলবে না। পৃথিবীর কোনো ভালো কাজই প্রথমবারে হয়নি। আমরা প্রথমবার ব্যর্থ হবো, দ্বিতীয়বার ব্যর্থ হবো, তৃতীয়বার ব্যর্থ হবো কিন্তু চতুর্থবার আমরা সফল হবোই। আমরা তরুণ প্রজন্মরা অবশ্যই ছোটবেলা বইতে পড়েছি “পারিবনা ও কথাটি বলিওনা আর, একবার না পারিলে দেখো শতবার”। যতক্ষণ না আমরা কোনো ভালো কাজে সফল হবো ততক্ষণ আমরা কাজটি করে যাবো। আমরা যে বৈদ্যুতিক বাতি দিয়ে আলো জ্বালাই সে বাতিটি তৈরি করতে “টমাস আলভা এডিসন” চেষ্টা করেছেন শতবার। বার বার ব্যর্থ হয়েও তিনি থেমে থাকেননি তিনি চেষ্টা করে সফল হয়েছেন। আকিজ গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রির মালিক আকিজ সাহেব নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন বহু বাধা বিপত্তির মধ্যে দিয়ে।
তিনি জীবনে ব্যর্থ হয়েছে বহুবার। তবুও হাল ছাড়েননি নিজেকে সঠিক পথে চালনা করে তিনি হয়েছেন একজন সফল প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তি। কর্মসংস্থান জুগিয়েছেন হাজার হাজার বেকার যুবকের। বিশ্বের প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের মধ্যে বেশির ভাগ ব্যক্তিই ছিলেন তৃণমূল পর্যায়ের নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান। তবুও তারা নিজেদেরকে সঠিক পথে চালনা করে প্রতিষ্ঠিত হয়ে অমর হয়ে আছেন মানুষের কাছে। আমাদের বর্তমান প্রজন্ম কিন্ত তাদের থেকে অনেক এগিয়ে অনেক ভালো অবস্থানে। তাহলে তারা নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করে দেশ ও সমাজের উন্নয়নমূলক পরিবর্তন আনতে পারলে আমরা কেনো পারবোনা। আমরা অবশ্যই পারবো আমাদের পারতে হবে। বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আমাদের যতটা আকর্ষণ আমাদের কাজের প্রতিও ততটা আকর্ষণ থাকতে হবে। আমাদের একটা বিষয় মনে রাখতে হবে আমরা কোন কাজটি ভালো পারি সেই কাজটিই আমাদের মনোযোগ সহকারে করতে হবে। আমার পাশের একজন যে কাজটি করেছে আমিও সেই কাজটি করবো এরকম মন মানসিকতা থেকে আমাদেরকে বেড়িয়ে আসতে হবে। যে যে কাজটি ভালো পারি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সমাজ ও দেশ উন্নয়নের জন্য আমাদের সেই কাজটি ভালোভাবে করতে হবে। তবে আনন্দের বিষয় হচ্ছে আমাদের অনেক তরুণরাই নিজেদের শক্তির জায়গা বুঝতে পেরে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। উদাহরণ স্বরূপ টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিকের কথা ধরা যেতে পারে তিনি তাকে খুঁজে পেয়েছেন তার জায়গায়। সালমান মুক্তাদির তাকে খুঁজে পেয়েছেন তার জায়গায়। একের কাজ অন্যকে দিয়ে হয়না। আর যে কর্ম তার ঠিক তাই-ই করা উচিত। এতে করে নিজের ও সমাজের দুই জায়গাতেই আলো ছড়িয়ে পড়বে। আমাদের যেমন আয়মান সাদিক প্রয়োজন, তেমনি আমাদের সালমান মুক্তাদিরকেও প্রয়োজন। আমাদের তরুণ প্রজন্ম আরো যাদের দেখে উৎসাহ পেতে পারে তার মধ্যে রয়েছে ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমান। এভারেস্ট বিজয়ী নিশাত মজুমদার, ওয়াসফিয়া নাজরিন। লেখালেখির ক্ষেত্রেও তরুণ প্রজন্ম আমাদের আশার আলো দেখাচ্ছেন সাদাত হোসাইন, আখতারুজ্জামান আজাদ, ইশতিয়াক আহমেদ, রাজিব হাসানের মতো কবি লেখকরাও। আমরা ওসামা বিন নূরের মতো এন্টারপ্রেনার পেয়েছি, মাশাহেদ হাসান সীমান্তের মতো মোটিভেশনাল স্পিকার পেয়েছি। প্রয়োজনের তুলনায় যথেষ্ট না হলেও আমাদের সমাজে আমাদের আশে পাশে আমরা অনেক উদ্যোক্তা পেয়েছি। এর মধ্যে নারী উদ্যোক্তাও আশানিয়া। নারীরাও পুরুষদের পাশাপাশি দেশ ও সমাজ উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে। এদের থেকে উৎসাহ পেয়ে আমরা আমাদের সঠিক ক্ষেত্র নির্বাচন করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারি, যাওয়া উচিত। দেশ ও সমাজকে আমাদের যার যা কিছু দেয়ার আছে দেওয়া উচিত। আমাদের তরুণদের প্রত্যয় হোক এমন। তবে অস্বীকার করার উপায় নেই যে সরকারেরও এক্ষেত্রে অনেক দায়বদ্ধতা রয়েছে। তরুণদের বিভিন্নভাবে উৎসাহ দিতে হবে। তরুণরা কি বলতে চায় তা শুনতে হবে। তরুণরা যে সঠিককাজ গুলো করতে চায় তা করতে দিতে হবে। করতে সাহায্য করতে হবে। আমাদের আরো অনেক বিভিন্ন সেক্টর রয়েছে, সেখানেও আমাদের তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে। নিতে হবে দায়িত্ব। এন্টারটেইনমেন্ট কিংবা গবেষণা যে সেক্টরই হোক না কেনো সেই সেক্টরেই শিক্ষিত ও দক্ষ তারুণ্য শক্তির প্রয়োজন। তারুণ্যের শক্তি সঠিকভাবে ব্যবহার করা যেতে পারলে আমাদের দেশটা সোনার দেশ না হয়ে পারেইনা। হে তরুণরা চলো আমরা আমাদের তারুন্যর শক্তি দিয়ে এগিয়ে যাই নিজেদের জন্য, সমাজের জন্য, বাংলাদেশ নামক আমাদের এই মাতৃভূমি মায়ের জন্য। জয় হোক মানবতার, জয় হোক তারুণ্যের।


মোঃ রুবেল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক, কেন্দ্রীয় কমিটি, প্যারেন্টস্ এজিং ফাউন্ডেশন।

Comments

comments

আরও পড়ুন

মঠবাড়িয়ায় যাত্রীবাহী বাসচাপায় আদালতের অফিস সহায়ক নিহত: আহত দুই
মঠবাড়িয়ায় যাত্রীবাহী বাসচাপায় আদালতের অফিস সহায়ক নিহত: আহত দুই
মঠবাড়িয়ায় যাত্রীবাহী বাসচাপায় আদালতের অফিস সহায়ক নিহত: আহত দুই
রুট পারমিট ছাড়া বেপরোয়া গতির বাসে কলেজ ছাত্রের জীবন কেড়ে নিল \ সড়ক অবরোধ
রুট পারমিট ছাড়া বেপরোয়া গতির বাসে কলেজ ছাত্রের জীবন কেড়ে নিল \ সড়ক অবরোধ
রুট পারমিট ছাড়া বেপরোয়া গতির বাসে কলেজ ছাত্রের জীবন কেড়ে নিল \ সড়ক অবরোধ
পৌর প্রশাসকের দায়িত্বভার বুঝে নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক
পৌর প্রশাসকের দায়িত্বভার বুঝে নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক
পৌর প্রশাসকের দায়িত্বভার বুঝে নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক
পরকীয়ার বিরোধে চাচাত ভাইয়ের ধারালো অস্ত্রের কোপে দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন
পরকীয়ার বিরোধে চাচাত ভাইয়ের ধারালো অস্ত্রের কোপে দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন
পরকীয়ার বিরোধে চাচাত ভাইয়ের ধারালো অস্ত্রের কোপে দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন
মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
ইজারাদারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ও টাকা লুটের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
ইজারাদারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ও টাকা লুটের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
ইজারাদারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ও টাকা লুটের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

ফেইসবুকে আমরা

পুরাতন খবর

SatSunMonTueWedThuFri
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30      
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728    
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31      
   1234
567891011
12131415161718
2627282930  
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
     12
10111213141516
17181920212223
24252627282930
       
  12345
6789101112
2728293031  
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728     
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
   1234
567891011
12131415161718
262728293031 
       
78910111213
21222324252627
282930    
       
     12
3456789
17181920212223
24252627282930
31      
   1234
567891011
12131415161718
       
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
    123
11121314151617
18192021222324
25262728293031
       
  12345
20212223242526
27282930   
       
      1
9101112131415
23242526272829
3031     
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
1234567
15161718192021
22232425262728
29      
       
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
       
 123456
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
9101112131415
16171819202122
30      
   1234
567891011
262728293031 
       
14151617181920
21222324252627
282930    
       
     12
3456789
10111213141516
24252627282930
31      
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
1234567
15161718192021
22232425262728
2930     
       
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
       
  12345
6789101112
13141516171819
27282930   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
3031     
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
232425262728 
       
   1234
567891011
19202122232425
262728293031 
       
293031    
       
     12
10111213141516
17181920212223
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
2930     
       
    123
18192021222324
       
28293031   
       
      1
16171819202122
30      
   1234
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
78910111213
282930    
       
     12
3456789
31      
     12
3456789
17181920212223
2425262728  
       
      1
23242526272829
3031     
 123456
78910111213
28293031